June 2018

আনন্দমার্গের ধর্মমহাসম্মেলন

আনন্দমার্গের প্রবক্তা ও প্রবর্তক শ্রীশ্রীআনন্দমুর্ত্তিত্ব্ ৯৮-তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষ্যে গত ২৬শে মে থেকে ২৮শে মে পর্যন্ত পুরুলিয়ার আনন্দনগরে আনন্দমার্গের ধর্মমহাসম্মেলন অনুষ্ঠিত হ’ল৷ মার্গগুরুদেবের প্রতিনিধি রূপে ধর্মমহাসম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংঘের পুরোধা প্রমুখ আচার্য কিংশুকরঞ্জন সরকার৷

পেট্রোল-ডিজেলের দাম ক্রমাগত বাড়ছেই

তেলের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েই চলেছে, গত ১২ দিন ধরে অবিরাম৷ বলা হচ্ছে, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের মূল্য বৃদ্ধিই এর কারণ৷

পুরোনো তথ্য থেকে জানা যায় পাঁচ বছর আগে ২০১৩ সালের সেপ্ঢেম্বরে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের ব্যারেল পিছু দাম ছিল ১০৮ থেকে ১১০ ডলারের মধ্যে তখন কলকাতায় পেট্রোলের দাম ছিল মিটার পিছু ৮৩.৬৩ টাকা৷ আর ডিজেলের দাম ৫৬.৩৩ টাকা৷

পাঁচ বছর পরে, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশাধিত তেলের দাম কমে হয়েছে ৬৭.৫০ ডলার৷ আন্তর্জাতিক বাজারে এই মূল্য হ্রাসের ফলে ভারতেও পেট্রোল ডিজেলের মূল্য তুলনামূলকভাবে হ্রাস পাওয়ার কথা৷ কিন্তু না৷

শুধুই প্রতিশ্রুতি

প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সকলের মাথার ওপরে ছাদ যোগানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন৷ কেউ গৃহহীন থাকবে না৷ কিন্তু সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারেরই দেওয়া তথ্যে প্রকাশ পেল, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা লক্ষ্যমাত্রার দশ শতাংশও পূর্ণ করতে পারেনি৷

 

বাংলাদেশে আনন্দমার্গের ধর্মমহাসম্মেলন

আগামী ৭,৮ ও ৯ই জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার, শুক্রবার  ও শনিবার  বাংলাদেশে আনন্দমার্গের ধর্মমহাসম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে৷ ধর্মমহাসম্মেলনের স্থান বীরগঞ্জ হরিবাসর  প্রাঙ্গন, বীরগঞ্জ, দিনাজপুর৷

বাংলাদেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে পঞ্চগৌড়গামী বাসযোগে বীরগঞ্জ শহীদ মিনার মোড়ে  নামতে হবে৷ ট্রেনে  দিনাজপুর ষ্টেশনে  নেমে বাসযোগে  বীরগঞ্জ যাওয়া যাবে৷ আয়োজক ---আনন্দমার্গ  প্রচারক সংঘ, বীরগঞ্জ, ঠাকুরগাঁও, বাংলাদেশ৷ 

n যোগাযোগn ০১৭১৯-২৪৯৩৩৩,

০১৭৮৬-৪৫৬৯২৪,  ০১৭২১-৪৩৫৫৭৮

অধ্যাপক ভাস্কর পুরকায়স্থ স্মরণে

আচার্য রবীশানন্দ অবধূত
Bhaskar Babu

অধ্যাপক ভাস্কর পুরকায়স্থের সঙ্গে আমার পরিচয় ২০১১ সাল থেকে৷ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতির বিভাগীয় প্রধান  ডঃ দিলীপ হালদার আমার সাথে পরিচয় করিয়ে দেন ভাস্কর পুরকায়স্থের সঙ্গে৷ ২০১১ সালের জুন মাসে আনন্দ পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে  একটি আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়েছিল মৌলালী যুবকেন্দ্রে৷ সেই সভায়  অধ্যাপক পুরকায়স্থ বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত হয়েছিলেন৷ তিনি প্রাউটের  সমবায় পদ্ধতির অভিনবত্ব ও সদবিপ্রতন্ত্র সম্পর্

জঙ্গল মহল আজও পরিবর্তন চায়

হরনাথ মাহাত

পঞ্চায়েত নির্বাচন শেষ হলো৷  জঙ্গলমহল এবার  তৃণমূল  দল থেকে  বিজেপি  দলকে বেশী পছন্দ করেছে৷ কেন? কী তার জবাব?  উত্তর কারোর জানা  নেই৷ প্রথমে  কংগ্রেস, সিপিএম  তারপর  মাওবাদী এর পর তৃণমূল এখন বিজেপি  দলকে সামনে এনে মুখের স্বাদ পরিবর্ত্তন  করার একটা  প্রবনতা স্থানীয়  নেতাদের  ইচ্ছা জাগে  আর সাধারণ  মানুষ ভেড়ার  পালের  মত তাঁদের  পিছনে  দৌড়ায়৷ (আমি ইচ্ছা করে রাঢ়ের  বা জঙ্গলমহলের  মানুষকে  ভেড়া  বলিনি৷  আমার গুরুদেব শ্রীশ্রী আনন্দমূর্ত্তিজী খুবই শ্রদ্ধা করতেন আমিও করি৷ পরিস্থিতি বলতে বাধ্য করেছে)

পরমপুরুষের বিশ্বরূপ

সৃষ্টির প্রারম্ভের আগের কথা৷ সে সময় দেশ–কাল–পাত্রের মত সাপেক্ষ সত্তা ছিল না৷ একমাত্র ছিল অখণ্ড অসীম, বৃহৎ, সর্বব্যাপী সত্তা, আর সেই  সত্তার সাক্ষিত্বরূপে ছিলেন পরমপুরুষ৷ সেই অখণ্ড সৃষ্টির রচয়িতা পরমপুরুষ নিজেকেই অনেক রূপে নানাপ্রকারে অভিব্যক্ত করলেন৷

‘‘ত্বং স্ত্রী ত্বং পুমানসি, ত্বং কুমার উত বা কুমারী৷

ত্বং জীর্নোদণ্ডেন বঞ্চয়সি ত্বং জাতো ভবসি বিশ্বতোমুখঃ৷’’

‘‘নীলঃ পতংগো হরিতো লোহিতাক্ষ

স্তত্তিদ্গর্ভ ঋতবঃ সমুদ্রাঃ৷

অনদিমত্বং বিভুত্বেণ বর্ত্তসে

 যতোজাতানি ভুবনানি বিশ্ব৷৷’’

শোষণমুক্ত বিশ্বায়ন

দুটি অঞ্চল উন্নয়নের প্রায় সমস্তরে এসে পৌঁছলে তাদের পক্ষে এক–সঙ্গে মিলিত হয়ে বৃহত্তর সামাজিক–র্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে’ তোলা সম্ভব৷

দুই বা ততোধিক সামাজিক–র্থনৈতিক অঞ্চল একসঙ্গে মিলিত হতে পারে যদি কয়েকটি শর্ত পূরণ হয়৷ শর্তগুলি হ’ল–

প্ত  সামাজিক–র্থনৈতিক অঞ্চলগুলির অর্থনৈতিক

                  বৈষম্যের ক্রমাবসান৷

প্ত  বিজ্ঞান ও যোগাযোগের উন্নতি ৷

প্ত  প্রশাসনিক যোগ্যতা৷

প্ত  সামাজিক–সাংসৃক্তিক মেলামেশা৷

চাই নোতুন মানুষ, নোতুন আদর্শ

আচার্য সত্যশিবানন্দ অবধূ্ত

সব রাজনৈতিক নেতারাই তারস্বরে গণতন্ত্রের সুনাম করেন৷ রাজতন্ত্র, অভিজাত–তন্ত্র, একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে সরব নয়– এমন বোধ করি একজনও নেতা বা নেত্রী পাওয়া যাবে না৷ তবুও এ প্রশ্ণটা অত্যন্ত সঙ্গত যে– গণতন্ত্রকে কেউ কি মানে?

গণতন্ত্র মানে তো জনগণ, কারও চাপে নয়, স্বাধীন ভাবে বিচার–বিবেচনা করে তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করবে৷ আর সেই জনপ্রতিনিধিরা দেশ পরিচালনা করবে৷ তবে তাকে বলা হবে জনগণের দ্বারা নির্বাচিত জনগণের জন্যে–জনগণের সরকার৷ একেই বলে গণতন্ত্র৷

৫ই জুন পরিবেশ দিবস - পরিবেশ রক্ষা ও নব্যমানবতাবাদ

আচার্য সত্যশিবানন্দ অবধূ্ত

আমাদের চারপাশের জলবায়ু, গাছপালা, মাটি,  অন্যান্য প্রাণী, মানুষ, জৈব ও অজৈব সমস্ত কিছু নিয়েই আমাদের পরিবেশ৷ পৃথিবীর পরিবেশ জীব বিকাশের  পক্ষে অনুকূল বলেই এই পৃথিবীতে মানুষের বাস৷  অথচ সৌরজগতের আর কোথাও বা বিশ্বব্রহ্মান্ডের  কোথাও এখন মানুষ জীবের সন্ধান পাচ্ছে না৷ হয়তো বিশ্বব্রহ্মান্ডের কোথাও না কোথাও জীব আছে৷ হয়তো, দূরবর্তী কোনো নক্ষত্রের সংসারে৷ যেমন এ সূর্যের  সংসারে পৃথিবী--- এমনি কোনো পৃথিবী আছে সেখানে হয়তো মানুষ আছে, কিন্তু এখনো আমাদের  বিজ্ঞানীদের জানার বাহিরে৷  তাই এখন আমরা বলতে পারি, এ সুবিশাল বিশ্ব ব্রহ্মান্ডে একমাত্র পৃথিবীর পরিবেশ মনুষ্য বসবাসপোযোগী৷ এর বাইরে মানুষের  বাঁচবার বেড়ে