খেলার খবর

অনূর্ধ পনেরোর সাই ক্যাম্পে নতুন প্রতিভা রাজীব, বিশাল

স্থানীয় মির্জাপুর হাজি সুলেমান হাইস্কুলে নবম শ্রেণিতে  পড়ে রাজিবুল৷   পড়াশুনার সাথে সাথে ফুটবল মাঠেও নিয়মিত দেখা যায় তাকে৷ ছোট্ট একচালার টালির ঘর, কালিমাখা দেওয়ালে টাঙ্গানো বুটজোড়া আর তাই নিয়ে আপাতত আশায় বুক বেঁধেছে  বেলডাঙ্গার  প্রত্যন্ত সরুলিয়া গ্রামের  রাজিবুল ইসলাম৷  সম্প্রতি সাইয়ের(স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া) সল্টলেক কেন্দ্রে অনূধর্ব ১৫ বছর বয়সীদের দীর্ঘমেয়াদি আবাসিক প্রশিক্ষণ শিবিরের বাছাই  তালিকায় স্থান পেয়েছে তার নাম৷  গত সোমবার তার মেডিকেল টেষ্ট হয়েছে  ওই পরীক্ষায় সে উর্ত্তীণও হয়েছে৷ সাইয়ে থেকে ফুটবল শেখার সুযোগ পাবে সে৷ ভাঙা বাড়িতে  যেন হঠাৎ চাঁদের আলো ঢুকে পড়েছে৷ তবে দরিদ্র  পরিব

তিরাশির বিশ্বকাপ দলের মত অদম্য মানসিকতা নিয়ে টিম ইণ্ডিয়াকে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে বিশ্বকাপের আসরে

আজ থেকে ৩৬ বছর আগে কথা৷ সালটা ১৯৮৩৷ ইংল্যাণ্ডের লর্ডস ষ্টেডিয়ামে কপিল দেবের নেতৃত্বে ওয়েষ্ট ইণ্ডিজকে হারিয়ে ভারত প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছিল৷ ১৯৮৩-র বিশ্বকাপ শুরুর আগে ভারতীয় দলকে নিয়ে ক্রিকেট বোদ্ধাদের কোন উচ্চাশা ছিল না৷ কিন্তু কপিল দেব, সুনীল গাভাসকার, রবি শাস্ত্রী, মহিন্দর অমরনাথ, মদনলাল প্রমুরা যে টীম স্পিরিট আর হার না মানার যে মানসিকতা দেখিয়েছিলেন তারই ফলস্বরূপ ইতিহাসে স্থান করে নিতে পেরেছিল---প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী ভারত৷

বাংলার মেয়েরা দেহরাদুনে জাতীয় অনূধর্ব-১৯ ওয়ানডে প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন 

জাতীয় সিনিয়র ওয়ান ডে প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন ঝুলন গোস্বামীরা৷ সেটাই চাগিয়ে দিয়েছিল মেয়েদের অনূধর্ব-১৯ দলকে৷ এবার জাতীয় অনূধর্ব ১৯ ওয়ানডে প্রতিযোগিতা থেকেও চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফিরছে বাংলার মেয়েরা৷

আয়োজক দেশ ইংল্যাণ্ডকেই বিশ্বকাপের প্রধান দাবিদার মনে করছেন গাওস্কার

বিরাট কোহলির হাতে ধরা বিশ্বকাপের ছবি যতই ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা কল্পনা করুন না কেন, তা দেখছেন না সুনীল৷ তিনি আয়োজক দেশ ইংল্যাণ্ডকেই বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ দল হিসাবে মনে করছেন৷

জোড়া বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন বাংলার গর্ব দীপা কর্মকার

জোড় বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়াতে খুবই উচ্ছসিত দীপা ও তিনি বলেও দিয়েছেন ‘‘পদক জিতব বলে কোনও প্রতিযোগিতায় নামতে হলে প্রচুর বাড়তি চাপের মুখে পড়তে হয়৷ আমি যে টুকু বলতে চাই তা হলো, দুটো বিশ্বকাপেই সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব৷’’ পদকের কথা মুখে না বললেও জোড়া পারফরম্যান্সের উপর কতখানি নির্ভর করছে দীপার ভাগ্য৷ সোনা বা রুপো জিতলে তাঁর টোকিয়ো অলিম্পিক্সে রাস্তা কিছুটা হলেও পরিষ্কার হতে পারে৷ তবে এ বার অলিপিক্সে যোগ্যতা পাওয়া বেশ কঠিন৷ ধারাবাহিক ভাল ফল করতে হবে দীপাকে৷

ঝুলন আবার আইসিসি-র সেরা বোলার, ভারতের সেরা অলরাউণ্ডার তিনিই

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারীর পরে আবার এই প্রাপ্তি কিংবদন্তি পেসারের৷ বয়স যে শুধুমাত্র একটি সংখ্যা ও পারফম্যান্সই শেষ কথা, তা ইংল্যাণ্ডের বিরুদ্ধে শেষ ওয়ানডে সিরিজে আরও একবার বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি৷

২০১৭ বিশ্বকাপে রানার্স হওয়ার পরে ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের প্রতি ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রত্যাশা বেড়েছে৷ সেই প্রত্যাশা ধরে রাখাই লক্ষ্য ভারতীয় পেসারের৷ ঝুলন বলছিলেন, ‘‘বিশ্বকাপের পরে শুধু অষ্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আমরা ওয়ান ডে সিরিজ হেরেছি৷ বাকি দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যাণ্ড, শ্রীলঙ্কা, ইংল্যাণ্ডকে হারিয়েছি৷ র্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান পাওয়ার চেয়ে এই প্রাপ্তি অনেক বেশি গর্বের৷’’

কৃষক পরিবারের ছেলে সৌরভ চৌধুরী বিশ্বরেকর্ড করলেন

মিরাটের কালিনা গ্রামের এক কৃষক পরিবারের ছেলে হলেন সৌরভ চৌধুরী, গঙ্গা-যমুনা অববাহিকায় তার পূর্বপুরুষদের হাতে থাকত লাঙ্গল৷ কিন্তু মাত্র ষোলো বছরের সৌরভের হাতে যে পিস্তল! তা দিয়ে একের পর এক লক্ষ্যভেদ করে যাচ্ছে৷

গত রবিবার, দিল্লির ড.কার্নিং সিংহ শুটিং রেঞ্জে৷ প্রথমবার বড়দের শুটিং বিশ্বকাপে নেমেই সোনা৷ একই সঙ্গে বিশ্বরেকর্ডও ৷ ঘটনাচক্রে, তার নিজের ইভেন্ট ১০ মিটার এয়ার পিস্তল জুনিয়র বিশ্বরেকর্ডের অধিকারী হন সৌরভ চৌধুরী৷

দক্ষিণ আফ্রিকার মতো পাক বাতিলের ডাক দিলেন বোর্ড প্রধান---বিনোদ রাই

পুলওয়ামার হামলার ঘটনার পরে আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের  ম্যাচ বয়কটের দাবী উঠেছে আগেই৷ সৌরভ ও হরভজন সিংয়ের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটাররা এই বয়কটের কথা জানিয়েছেন৷ সৌরভতো একধাপ এগিয়ে বলেছেন, সব ধরনের খেলার থেকেই সম্পর্ক ছিন্ন করা উচিত পাকিস্তানের সঙ্গে৷ তবে শচীন তেণ্ডুকর ও সুনীল গাওস্কার আবার চাইছেন বিশ্বকাপে মাঠেই জবাব দেওয়া উচিত হবে পাকিস্তানকে৷ ভারতীয় বোর্ড ইতিমধ্যে আইসিসি কে চিঠি লিখে আইসিসি কে জানিয়েছে,‘‘যে সব দেশ সন্ত্রাসবাদে মদত দেবে তাদের সঙ্গে যেন সব রাষ্ট্র খেলার দিক থেকে  সম্পর্ক ছিন্ন করে৷’’ তবে সুপ্রিমকোর্ট নিযুক্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে  পরিচালক কমিটি এ্যাডমিনিষ্ট্রেটর্

পুলওয়ামার আঁচ ক্রীড়াক্ষেত্রেও

স্বাভাবিকভাবেই পুলওয়ামায় পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জঙ্গী হানার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন ভারতীয় ক্রীড়াজগতের অনেক প্রবাদপ্রতীম ব্যষ্টিত্বরা৷ নিরপরাধ সেনাদের প্রতি এই হত্যালীলার জন্যে অনেকেই খেলার মাঠে পাকিস্তানকে বয়কট করার কথা বলেছেন৷ তাই প্রশ্ণ উঠে আসছে আসন্ন ক্রিকেট বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত কি মাঠে নামবে? আই সি সি অবশ্য জানিয়েছে---পাকিস্তানকে বাদ দেওয়ার প্রশ্ণ নেই৷

পেজ,ভূপতি ও সানিয়া  এক সাথে কাজ করা উচিত---বললেন জার্র্মন টেনিস তারকা বরিস

ভারতীয় টেনিসের  উন্নতিতে তিন আইকন  লিয়েণ্ডার পেজ,মহেশভূপতি, সানিয়া মির্জার হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করা উচিত৷ এমনই মনে করেন  কিংবদন্তি জার্র্মন  তারকা বরিস বেকার৷ ভারতীয় টেনিস প্রসঙ্গে  তিনি বলেন, ‘ভারতীয়  টেনিসের দীর্ঘ ঐতিহ্য রয়েছে৷ একটা বিরাট  সংখ্যক  প্লেয়ার রয়েছে৷  কিন্তু সমস্যা হল, শেষ তিন দশকে ভারত থেকে কোনও  বিশ্বমানের সিঙ্গলস প্লেয়ার  উঠে আসেনি৷ পেজ,ভূপতি, সাইনা  ডাবলস্ স্পেশালিষ্ট৷ সেদিক থেকে ভারতের  বিশ্বমানের ডাবলস প্লেয়ার  একের পর এক  উঠে এসেছে৷ কিন্তু টেনিস ঐতিহ্যের পর্যলোচনা  করলে ভারত থেকে বিশ্বমানের  সিঙ্গলস প্লেয়ার উঠে আসা উচিত  সানিয়া, লিয়েণ্ডারদের৷ জার্র্মনি ও ফ্রান্সের  টেনিস