খেলার খবর

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশ না নিয়েও দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হতে পারেন ভারতের অমল মজুমদার

তিনি ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্ধর্ষ ব্যাটসম্যান৷ যাঁর মুম্বাইয়ের হয়ে রঞ্জিতে বড় রান করার অভিজ্ঞতা৷ প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ১৭১টি ম্যাচে ১১,১৬৭ রান করার দক্ষতা দেখিয়েছেন অমল মজুমদার৷ এই রেকর্ডগুলো দেখেই হয়তো দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত ডিরেক্টর  কোরি ফান জাইলের ফোন আসে অমলের কাছে তাদের সিনিয়র ক্রিকেট দলে ব্যাটিং কোচের অফার নিয়ে৷ যদি দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হয়ে বুমরা সমৃদ্ধ ভারতীয় পেস বিগ্রেড ও বিষাক্ত ভারতীয় স্পিন অ্যাটাককে সামাল দেওয়া যায় তবে বিশ্ব ক্রিকেটে কোচ হিসেবে একটি ভাল জায়গায় পৌঁছে যাবেন অমল৷ সেই আশা নিয়েই অমল মজুমদার দক্ষিণ আফ্রিকায় পাড়ি জমাতে পারেন সেই দেশের ব্যাটসম্যান হয়ে৷

ভারতীয় উইকেট কীপার হিসেবে ধোনীই সেরা

ভারতীয় ক্রিকেটে অনেক ভাল ভাল উইকেট কীপার ব্যাটসম্যান হিসেবে বিশ্ব ক্রিকেটে নজর কেড়েছেন৷ তাঁদের মধ্যে ফারুক ইঞ্জিনিয়র, সৈয়দ কিরমানি, কিরণ মোরে, সদানন্দ বিশ্বনাথ ও অবশ্যই মহেন্দ্র সিং ধোনী অন্যতম৷ তবে সবাইকে ছাপিয়ে গেছেন মাহি৷ মাঠে খেলার মধ্যে মাথা ঠাণ্ডা রেখে দলকে পরিচালনা করার ব্যাপারে তাঁর জবাব নেই৷ অনেক ম্যাচ একক দক্ষতায় নিজের দলের অনুকূলে ম্যাচকে ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে মহেন্দ্র সিং ধোনী যেন সেরাদের মধ্যে সেরা৷ সেই কারণে এই মুহূর্ত্তে বলা চলে যে ভারতীয় উইকেট কীপার হিসেবে সর্বকালের সেরা উইকেটের পেছনের খেলোয়াড়টি অবশ্যই মহেন্দ্র সিং ধোনী৷ এই মুহূর্ত্তে সেই কারণেই বলা চলে যে তাঁর অবসরের সিদ্ধান

বিরাট কোহলি শীর্ষে

সাম্প্রতিক ওয়েষ্ট ইণ্ডিজের বিরুদ্ধে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির নিজস্ব ছন্দেই রয়েছেন৷ ওয়েষ্ট ইণ্ডিজ নিজেদের মাঠে আশানুরূপ ফল করতে পারেনি ভারতীয়দের ব্যাটিং ও বোলিংয়ের বিরুদ্ধে৷ ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি একটি টেষ্টে ৫০-এর বেশী রান করার পর বিশ্ব র্যাঙ্কিংয়ে তিনি ব্যাটিংয়ে শীর্ষে৷ তাঁর যে পারফরম্যান্স তাতে কোথায় গিয়ে তিনি থামবেন সেটাই এখন আলোচনার বিষয়৷

সব বাধা পেরিয়ে বাংলা দলের অধিনায়ক হলেন অভিমন্যু

বাবার হাত ধরে দেহরাদুন থেকে বনগাঁয় এসেছিল এক ন বছরের ছেলে প্রায় ১৪ বছর আগের কথা৷ ছেলেটির নাম অভিমন্যু৷ তার বাবা স্বপ্ণ দেখতেন ছেলে ক্রিকেটার হবে, কিন্তু ছেলের অপুষ্টিকর চেহারা স্বপ্ণের পথে বাধা সৃষ্টি করেছিল কিন্তু আজ সব রকম বাধা পেরিয়ে সেই ছেলেই বাংলা দলের অধিনায়ক নির্বাচিত হয়েছে৷  ক্রিকেটাররূপে নিজেকে গড়ে তোলা যে ছেলের পক্ষে ছিল খুবই কঠিন৷ তার  বাবা তাকে বনগাঁয় অপু সেনগুপ্তের কাছে প্রশিক্ষণের জন্যে নিয়ে আসেন৷ অপুষ্টির কারণে ছেলেটির অর্থাৎ অভিমন্যুর  রোগা-পাতলা চেহারা হওয়ায় তাকে দেখেই কোচ অপু সেনগুপ্ত ভরসা হারিয়ে ফেলেন৷ কিন্তু পরবর্তীকালে অভিমন্যুর ব্যাটিং স্কিল দেখে তিনি মুগ্দ হন ও অভিমন্

ভারতীয় পেসারদের মধ্যে বুমরা গড়তে চলেছে  এক  নতুন  ইতিহাস

ভারতীয় পেসার মানেই তাঁর কাজ ছিল নতুন বলটার পালিশ তুলে স্পিনারদের হাতে তুলে দেওয়া বা পিচে স্পিনারদের জন্যে ফুট প্রিন্ট তৈরি করা৷ তার মাঝে কিছু কিছু  পেসার নিজেদের দক্ষতায় অন্যদের থেকে আলাদা হয়ে উঠেছিলেন৷ কিন্তু  কখনওই ওয়েষ্ট ইন্ডিজ, ইংল্যাণ্ড, অস্ট্রেলিয়া বা পাকিস্তানের পেসারদের মতো ব্যাটসম্যানদের মনে ভয় তৈরি করতে পারেন নি৷ কিন্তু সময় পাল্টেছে৷

সুইজারল্যাণ্ডে অপ্রতিরোধ্য হয়েই সোনা জয় পি. ভি. সিন্ধুর

সুইজারল্যাণ্ডের বাসেলে একেবারে  একতরফা ম্যাচে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলেন পিভি সিন্ধু৷  ভারত থেকে এই প্রথম তবে ব্যাডমিন্টন কোর্টে হায়দরাবাদের ২৪ বছর বয়সি শাটলারের বিধবংসীরূপ এর আগেও দেখেছে বিশ্ব৷ এক ঝলকে  ফিরে দেখা  সিন্ধুর কয়েকটি অবিশ্বাস্য কীর্তি৷

গত রবিবার বাসেলে সোনার পদক ছিনিয়ে নেওয়ার পর কিংবদন্তি শাটলার চিনের ঝ্যাংনিংয়ের এক অনন্য রেকর্ড স্পর্শ করলেন  পি.ভি সিন্ধু৷ নিংয়ের মতোই বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে পাঁচ-পাঁচটি পদক হল তাঁর৷

ওয়েস্ট ইণ্ডিজের বিরুদ্ধে  শতরান করে সমালোচকদের যোগ্য জবাব দিলেন অজিঙ্ক রাহানে

নিশ্চিন্ত মেজাজে এখন ভারতীয় দল, কারণ প্রথম টেস্টে ওয়েস্ট ইণ্ডিজকে পরাজিত করেছে৷ সেহেতু এখন একদিক থেকে একটু নিশ্চিন্ত আরও একজন তাঁর নাম অজিংঙ্ক রাহানে৷ গত দুবছর ধরে তার শত  রানের কোটা পূরণই হচ্ছিল না৷ এই ম্যাচে সেটা পূরণ হওয়ায় তিনি এখন স্বস্তিতে৷ সব মিলিয়ে ভারতীয় শিবিরে এখন খুশির আবহাওয়া বইছে৷

তারই মাঝে ফিরে দেখা যাক, রাহানের গত দুবছরের তীব্রচাপের দৃশ্য অর্র্থৎ কেমন মানসিক চাপের মধ্যে দিয়েও যেতে হয়েছিল তাকে৷

বাসেলে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নকে হারালেন প্রণয় কুমার

ব্যাটমিন্টন দুনিয়ায় ‘সুপার ডন’ নামে পরিচিত,চীনা প্রতিদ্বন্দ্বী লিনকে হেলায় হারালেন ভারতের প্রণয় কুমার৷ প্রণয়ের পক্ষে ফল ২১-১১, ১৩-২১,২১-৭৷ একাদশ বাছাই ও  পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানের বিরুদ্ধে  এই জয় সত্যিই ইতিহাস গড়েছে ব্যাডমিণ্টন কোর্টে৷ বাসেলে অনুষ্ঠিত এই লড়াই বেশ উপভোগ্য হয়েছে দর্শকদের কাছে৷

বিদেশে বঙ্গ ললনার স্বর্ণজয়

চেক প্রজাতন্ত্রে আয়োজিত ইউরোপের এক প্রতিযোগিতায় ফের সোনা জিতলেন বঙ্গ ললনা হিমা দাস৷ হিমা ৩০০ মিটারে এই সাফল্য পেয়েছেন৷ গত শনিবার অর্র্থৎ ১৭ই আগষ্ট তাঁর স্বর্ণজয়ের এই খবর তিনি টুইটারের মাধ্যমে জানান৷ যেখানে হিমা লিখেছেন ‘‘৩০০ মিটার ইভেন্টে প্রথম হয়েই চেক প্রজাতন্ত্রের এই প্রতিযোগিতা শেষ করলাম৷’’

পরিচিতি যাই হোক সফলতা নিজের কষ্টের উপার্জন---তা প্রমাণ করলেন দুই কিংবদন্তি ক্রীড়াবিদের সন্তানেরা

একজন প্রাক্তন ফুটবলার ও একজন অ্যাথলিট ৷ যাদের মধ্যে একজন ফুটবলে মাঠ কাঁপাতেন ও আরেকজন দেশের সেরা গোল্ড মেডেল এনেজেন দেশের জন্যে এশিয়ান গেমসে৷ এঁদের দুহজনেরই মস্তকে উঠেছে অর্জুন পুরস্কারের মুকুট৷ একজন হচ্ছে তৎকালীন প্রাক্তণ ফুটবলার প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ে৷ আর অন্যজন হল  অ্যাথলিট জ্যোতির্ময়ী শিকদার৷