সংবাদ দর্পণ

নেতাজীর জন্মদিন উপলক্ষ্যে আন্দামানে একুশ দ্বীপের নামকরণ

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

গত সোমবার নেতাজীর ১২৭তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের ২১টি অনামী দ্বীপের পরমবীর চক্র জয়ীদের নামে নামকরণ করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী৷ এই নামকরণ নিয়ে চলছে রাজনৈতিক চাপানউতোর৷

ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের গুরুত্বের কথা মনে রেখে ২০১৮ সালে নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর নামে রস আইল্যাণ্ড দ্বীপের নামকরণ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী৷ একজন নেতাজী জন্মে জয়ন্তীতে ওই দ্বীপে নেতাজী উৎসর্গীকৃত জাতীয় স্মৃতি সৌধের মডেলের উন্মোচন করা হল৷ একই সঙ্গে মেজর সোমনাথ শর্মা, ক্যাপ্ঢেন বিক্রম বার্র্তর মতো পরমবীর চক্র প্রাপকদের নামে ২১টি বড় অনামী দ্বীপের নামকরণও করলেন প্রধানমন্ত্রী৷

বিশ্বের বহু পোষ্যই বলিউডের তারকাদের থেকেও ধনী

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যষ্টিদের খবর অনেকেই রাখে৷ কিন্তু ধনী পোষ্যদের ব্যাপারে কতজন জানেন? এইসব ধনী পোষ্যদের সম্পত্তির পরিমাণ শুণলে অনেকেরই চোখ কপালে উঠবে৷ বলিউডের তারকাদের থেকেও তাদের সম্পত্তির পরিমান বেশী৷

শীর্ষ তালিকায় রয়েছে সষ্ঠ গানথার নামে একটি পোষ্য কুকুর৷ তার সম্পত্তির পরিমাণ ৫০০ মিলিয়ন ডলার যা ভারতীয় টাকায় হবে ৪ হাজার একশ কোটি টাকা৷ এই জার্র্মন স্পেন্সার্ড এই পরিমাণ সম্পত্তি পেয়েছে উত্তরাধিকার সূত্রে৷ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এক পোষ্য বিড়াল,মালা নামের এই বিড়ালটির ৪০ লক্ষ ফলোয়ার রয়েছে সোস্যাল মিডিয়ায়৷ ৮২০ কোটি টাকার মালকিন সে৷ বিশ্বের ধনী বিড়ালদের তালিকায় রয়েছে অলিভিয়া বেনসন নামের আরও একটি বিড়াল৷

সাইবার হামলা নিয়ে শঙ্কা

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

প্রযুক্তির ব্যবহার যত বাড়ছে, ততই বাড়ছে সেটাকে অপপ্রয়োগ করার প্রবণতা অর্থাৎ সাইবার হামলা ও দুর্নীতি৷ আগামী দিনে সাইবার দুর্নীতি সব কিছুকে ছাপিয়ে যাবে৷  যা রুখতে প্রতিটি রাজ্যকে আলাদা করে পরিকাঠামো উন্নয়নের পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্র৷

নোট বাতিলের পর থেকে দেশে ডিজিটাল লেনদেন বেড়েছে৷ বিশেষ করে খুচরো লেনদেনের একটি বড় অংশই হচ্ছে ডিজিটাল পদ্ধতিতে৷ সেই সঙ্গে বাড়ছে সাইবার দুর্নীতি৷ বিভিন্ন ব্যাঙ্কের গ্রাহকেরা যেমন সাইবার প্রতারণা শিকার হচ্ছেন, তেমনই সাইবার হামলার কারণে দেশের সুরক্ষা ব্যবস্থা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও অন্যান্য গবেষণামূলক প্রতিষ্ঠান বিপদের মুখে৷ ডিজিপি সম্মেলনে সাইবার নিরাপত্তা রুখতে এণ্ড টু এণ্ড নিরাপত্তার পক্ষে সওয়াল করা হয়েছে৷ যা নিশ্চিত করতে কেন্দ্র-রাজ্যের পাশাপাশি প্রয়োজনে বেসরকারি সাইবার বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বৈঠকে৷

রান্নাঘরে যন্ত্র রাঁধুনির রান্নার কেরামতি

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

এবার থেকে রান্নাঘরে মা, কাকিমা, ঠাকুমাকে আর বিভিন্ন পদ রান্নার জন্য বেশী পরিশ্রম করতে হবে না৷ কারণ তাদের কষ্ট লাঘব করার জন্য এসে গেছে নোতুন প্রযুক্তি ‘রোবোটিক্স’ এ্যান্ডরয়েড প্রযুক্তির রান্না করার যন্ত্র রাঁধুনি৷ এই যন্ত্রের দক্ষ হাতে  বিভিন্ন রান্নার সামগ্রী ঠিক ঠিক জায়গায় পৌঁছে যাবে ও পরিমাণ মতো সমস্ত উপকরণ সহযোগে সুস্বাদু ও উপাদেয় খাদ্যবস্তু মানুষের  সামনে হাজির হয়ে যাবে৷

জোশী মঠের পরে এবার বদ্রীনাথ জাতীয় সড়কেও ফাটল

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

জোশীমঠ বিপর্যয়ের মাঝে নতুন করে ফাটল দেখা দিল বদ্রীনাথ জাতীয় সড়কে৷ এক থেকে দুই মিটার চওড়া ফাটল দেখা গিয়েছে বদ্রীনাথ জাতীয় সড়কের  একাধিক অংশে৷ বদ্রীনাথে তীর্থযাত্রার অন্যতম প্রধান রাস্তা এই জাতীয় সড়ক৷

জোশী মঠ, বদ্রীনাথ, হেমকুণ্ড যাত্রার ‘গেটওয়ে’ বলা হয় জোশীমঠকে৷ গাড়োয়াল হিমালয়ের বুকে সেই শহরেই বিপন্ন হয়ে উঠেছে সাধারণ জীবনযাত্রা৷ জোশীমঠে মোট ৮৬৩টি বাড়িতে ইতিমধ্যে ফাটল দেখা দিয়েছে৷ কোনও কোনও কোনও বাড়ি হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়েছে বাসিন্দাদের চোখের সামনে৷

জোশীমঠে ভূমি অবনমন নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে নিকটবর্তী অন্যান্য এলাকাতেও৷ বিশেষজ্ঞেরা জানিয়েছেন, অদূর ভবিষ্যতে ধীরে ধীরে বসে যাবে জোশীমঠ শহর৷ এই  ভূমি অনমন রোখা সম্ভব নয় বলেই মনে করা হচ্ছে৷ 

পরিবহন দপ্তরের কড়া পদক্ষেপ দূষণ নিয়ন্ত্রণে অবৈধ অটো বন্ধ

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

সারা রাজ্যজুড়ে দূষণের মাত্রা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে৷ দূষণ নিয়ন্ত্রণে আনতে অবৈধ অটোর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে পরিবহণ দফতর৷ কলকাতা তথা রাজ্য জুড়ে ঠিক কত সংখ্যক বেআইনি অটো চলছে তা যেমন সহজে জানতে পারবেন পরিবহন দফতরের কর্তারা, তেমনই সেই সব অটোর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থাও নিতে পারবেন তাঁরা৷ শনিবার এক সরকারি অনুষ্ঠাানে এই সমীক্ষা শুরুর কথা জানিয়েছেন পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী৷ শুধু বেআইনি অটোই নয়, পরিবেশ দূষণকারী কোনও গাড়িই পশ্চিমবঙ্গে চালানোর পক্ষপাতী নয় পরিবহন নয় পরিবহন দফতর৷ কিন্তু একসঙ্গে সব ধরণের গাড়ির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব নয়৷

কলকাতায় এবার পরিবেশ বান্ধব সোলার ট্রি

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

কলকাতা শহরের সৌন্দর্যায়নে পরিবেশ বান্ধব সোলার ট্রি বসতে চলেছে৷ গাছের  মতোই দেখতে এই ট্রি৷ সন্ধ্যা হলেই ওই গাছের পাতার ওপরই জলবে আলো৷ পরিবেশ বান্ধব এই সৌর আলো ব্যবহারের মাধ্যমে একদিকে যেমন বাড়বে নগরের সৌন্দর্য তেমনি সাশ্রয় হবে বিদ্যুৎ৷ কলকাতা পুরসভাসূত্রে প্রাপ্ত খবর এমনটাই৷ সোলারট্রি অনেকটা ব্যাণ্ডের ছাতার মতো দেখতে৷ স্টিল ও ফাইবারে তৈরী এই গাছের নীচে বসানো থাকবে একটি যন্ত্র৷ ওই যন্ত্রের সাহায্যেই যখন যে দিকে সূর্যের আলো থাকবে৷ সেদিক থেকেই গাছের পাতায় থাকা প্যানেল তাপ সংগ্রহ করে সৌরবিদ্যুৎ তৈরী করতে পারবে৷

এবার আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হবার সম্ভাবনা আর এক ভারতীয় মহিলার

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের হয় লড়তে পারেন আর একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান রাজনীতিবিদ নিকি হ্যালি৷ প্রথম ভারতীয় মহিলা হিসেবে এর আগে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কমলা হ্যারিসকে আগেই পেয়েছে আমেরিকা৷ এরপর আসতে পারেন নিকি৷ ডোনাল্ড ট্রাম্পের জমানায় দক্ষিণ ক্যারোলাইনার গভর্নর ছিলেন নিকি৷ পাশাপাশি রাষ্ট্রপুঞ্জে আমেরিকান রাষ্ট্রদূতের দায়িত্বও সামলেছেন তিনি৷ তবে রিপাবলিকান দলে ট্রাম্পের সমালোচক হিসেবেই নিকি বেশি পরিচিত৷ মতবিরোধের জেরে ২০১৮ সালে ট্রাম্প প্রশাসন থেকে ইস্তফাও দিয়েছিলেন তিনি৷ বৃহস্পতিবার একটি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তাঁকে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ণ করা হয়৷ স্পষ্ট করে উত্তর না দিলেও আগামী নির্বাচনে যে দলের হয়ে লড়তে পারেন, সেই ইঙ্গিত দিয়েছেন নিকি৷

আমরা বাঙালী সংঘটনের পক্ষ থেকে নেতাজীর ১২৭তম জন্ম দিবস পালন

সংবাদদাতা
নিজস্ব সংবাদদাতা
সময়

গত ২৩শে জানুয়ারী দেশপ্রেম, আত্মত্যাগ ও আপোষহীন সংগ্রামের মূর্ত প্রতীক নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৭তম জন্মদিবস যথোচিত মর্যাদার সঙ্গে সমগ্র বাঙালীস্তানের বিভিন্ন স্থানে পালন করলেন ‘আমরা বাঙালী’ সংঘটনের সদস্য সদস্যাবৃন্দ৷ কলকাতার বসুশ্রী সিনেমার সামনে থেকে শুরু করে নেতাজীর প্রতিকৃতিসহ একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা নেতাজীর বাসভবনে পৌঁছায়৷ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেছিলেন বাঙালীবাহিনী, বাঙালী নারীবাহিনী, বাঙালী ছাত্রসমাজ, বাঙালী যুবসমাজ, বাঙালী মহিলা সমাজ ও আমরা বাঙালী সংঘটনের সদস্য ও সদস্যাগণ৷ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সচিব, কেন্দ্রীয় সাংঘটনিক সচিব, যুগ্ম সচিব, অর্থসচিব, প্রচার সচিব, মহিলা সমাজ সচিব, যুব সমাজ সচিব ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ৷ কলকাতা, উঃ২৪পরগণা, দক্ষিণ ২৪পরগণা, হাওড়া প্রভৃতি পাশাপাশি জেলার আমরা বাঙালী নেতৃত্ব ও সদস্য সদস্যাগণ এই শোভাযাত্রায় যোগদান করেন৷ শোভাযাত্রায় ও নেতাজী বাসভবনের সামনে সাংবাদিকগণের সমক্ষে নেতাজী সম্পর্কিত দাবীগুলি তুলে ধরা হয়৷ দাবীগুলি (১) কেন্দ্রীয় সরকারকে নেতাজী অন্তর্ধান রহস্য অবিলম্বে উদঘাটন করতে হবে৷ (২) কেন্দ্রীয় সরকারকে ২৩শে জানুয়ারী জাতীয় ছুটির দিন ও নেতাজী জন্ম দিবসকে ননদেশপ্রেমপপ দিবস ঘোষণা করতে হবে৷ (৩) কেন্দ্রীয় সরকারকে অবিলম্বে তৎকালীন আজাদ হিন্দ্ ফৌজের সম্পত্তির পরিমাণ জনসমক্ষে প্রকাশ করতে হবে৷ (৪) অবিলম্বে বাঙালী রেজিমেণ্ট ঘটন করতে হবে৷ (৫) নেতাজী সম্পর্কিত সমস্ত গোপন ফাইল অবিলম্বে প্রকাশ করতে হবে৷ সাংবাদিকদের প্রশ্ণের উত্তরে কেন্দ্রীয় সচিব শ্রীজ্যোতিবিকাশ সিন্‌হা ভারতসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মহাফেজখানা থেকে নেতাজী সম্বন্ধিত সমস্ত গোপন ফাইল প্রকাশ করার দাবী জানান৷ তিনি বলেন, এই সমস্ত ফাইল প্রকাশ করলে নেতাজী সম্পর্কে মানুষের মনে যে ধোঁয়াশা রয়েছে তার নিরসন হবে ও নেতাজীর পূর্ণাঙ্গ জীবনী জনসমক্ষে প্রকাশিত হবে৷ সুভাষচন্দ্র বসুর মতো একজন মহান দেশপ্রেমিক ও দেশমাতৃকার মুক্তি সংগ্রামের অগ্রণী যোদ্ধা, যাঁর জন্যেই আজ ভারতবর্ষে স্বাধীনতা এসেছে, তাঁর সম্পর্কে এত ঢাক ঢাক, গুড় গুড় চলছে শুধুমাত্র তিনি ‘বাঙালী’ বলেই৷ হিন্দী সাম্রাজ্যবাদী  শাসকেরা কিছুতেই বাঙালীর অবদানকে মেনে নেয় না, বরং বাঙালীকে কালিমালিপ্ত করতে পারলেই তাদের আনন্দ৷ কিন্তু ‘আমরা বাঙালী’ হিন্দীওয়ালাদের এই প্রয়াস কিছুতেই সফল হতে দেবে না৷ প্রয়োজনে আরও বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাবে ও নেতাজীর যথাযোগ্য মর্যাদাকে ফিরিয়ে আনবেই আনবে৷ কলকাতা ছাড়াও উত্তর ও দক্ষিণ ২৪পরগণা, হুগলী, হাওড়া, জলপাইগুড়ি, মেদিনীপুর মুর্শিদাবাদ, পুরুলিয়া, শিলিগুড়ি, কোচবিহার, টাটানগর, আগরতলা ও ত্রিপুরার বিভিন্ন জেলায়, গৌহাটিসহ অসমের অপরাপর স্থানে যথাযোগ্য মর্যাদা সহকারে নেতাজী জয়ন্তী পালিত হয় ও শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়৷ নেতাজীর ১২৭তম জন্মদিবস পালনের অঙ্গ হিসেবে মেদিনীপুর শহরের কেরানীটোলা থেকে এক পদযাত্রা শহর পরিক্রমা করে ও ‘আমরা বাঙালী’র পক্ষ থেকে নেতাজীর মর্মর মূর্ত্তিতে মাল্যদান করা হয়৷

চেন্নাই বিমানবন্দরে পরিত্যক্ত ব্যাগ থেকে উদ্ধার বহু প্রাণী

সংবাদদাতা
পি.এন.এ.
সময়

ব্যাগ তো নয়৷ যেন আস্ত চিড়িয়াখানা৷ সেই ব্যাগ খুলতেই অভিবাসন দফতরের আধিকারিকরা এগুলি উদ্ধার করেন৷

বিমানবন্দরে মালপত্র যেখানে পরখ করানো হয়, গত বুধবার তার কাছেই ব্যাগটি পড়ে থাকতে দেখেন অভিবাসন দফতরের আধিকারিকরা৷ সন্দেহ হওয়ার ব্যাগটি তাঁরা খোলেন৷ দেখেন, ভিতরে রয়েছে ৪৫টি ছোট অজগর, তিনটি মারমোসেট বাঁদর, তিনটি কচ্ছপ, আটটি কর্ন সাপ৷ বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সব প্রাণীই দামি৷ অভিবাসন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, এই নিয়ে তদন্ত করছে পুলিশ৷ ওই প্রাণীগুলি ব্যাঙ্কক থেকে আনা হয়েছিল৷ উদ্ধার হওয়ার পরের দিন সেখানেই পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ এর আগেও চেন্নাই বিমানবন্দরে বিরল প্রজাতির প্রাণী উদ্ধার হয়েছে৷ গত নভেম্বরে বিরল প্রজাতির পিগমি মাপমোসেট ও বাঁদর উদ্ধার হয়েছিল এই বিমান বন্দরে৷ মাস কয়েক আগে ডোয়ার্ফ মনগুস উদ্ধার হয়েছিল ওই বিমানবন্দর থেকে৷ সেগুলি আফ্রিকার৷ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই প্রাণীগুলিকে মাদক খাইয়ে পাচার করা হয়৷